সুন্দরবনের খলিসা ফুলের প্রাকৃতিক মধু
Hot

সুন্দরবনের খলিসা ফুলের প্রাকৃতিক মধু

৳ 850.00

সুন্দরবনের খলিসা ফুলের প্রাকৃতিক মধু।যাহা সুন্দরবন হতে আমাদের মৌয়ালরা সংগ্রহ করে সম্পূর্ন নিজস্ব প্রতিষ্ঠানে বিশুদ্ধ করে বাজারজাত করা হয়।ভেজালের কথা ভুলে গিয়ে খাঁটি মধু কিনুন।গাজী বাড়ী ডটকমের মধুতে কোন ধরনের ভেজাল প্রমান করতে পারলে পাবেন নিশ্চিত এক লক্ষ টাকা পুরষ্কার।

Quantity
Compare
Category:

সুন্দরবনের খলিসা ফুলের প্রাকৃতিক মধু।

যাহা সুন্দরবন হতে আমাদের মৌয়ালরা সংগ্রহ করে সম্পূর্ন নিজস্ব প্রতিষ্ঠানে বিশুদ্ধ করে বাজারজাত করা হয়।

ভেজালের কথা ভুলে গিয়ে খাঁটি মধু কিনুন।

গাজী বাড়ী ডটকমের মধুতে কোন ধরনের ভেজাল প্রমান করতে পারলে পাবেন নিশ্চিত এক লক্ষ টাকা পুরষ্কার।

প্রতি কেজি মধুর মূল্য ৮৫০/- (আটশত পঞ্চাশ) টাকা।

বেশি পরিমান নিলে দাম কিছুটা কমবে।

আপনি আমাদের কাছ থেকে পাইকারী নিতে পারেন।

বাংলাদেশের যে কোন জেলায় মধু কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পাঠানো হয়।

জননী, সুন্দরবন, এস,এ পরিবহন ও ইউএসবি কুরিয়ার সার্ভিস।

গাজী বাড়ী ডটকমের হটলাইন: ০১৯১১ ৬১১ ৯৯৫

এবং ০১৭১১ ৯৪৪ ২৬২ (রকেট, নগদ ও বিকাশ)।

ই-মেইল: gazibari.info@gmail.com

ওয়েবসাইট: gazibari.com

মধু মানুষের জন্য আল্লাহ প্রদত্ত এক অপূর্ব নেয়ামত। স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং যাবতীয় রোগ নিরাময়ে মধুর গুণ অপরিসীম। রাসূলুল্লাহ (সা.) একে ‘খাইরুদ্দাওয়া’ বা মহৌষধ বলেছেন। পবিত্র কুরআনে সুরা আন নাহল ১৬:৬৮-৬৯-এ মৌমাছি সম্পর্কে উল্লেখ আছে। আয়ুর্বেদ এবং ইউনানি চিকিৎসা শাস্ত্রেও মধুকে বলা হয় মহৌষধ। এটা যেমন বলকারক, সুস্বাদু ও উত্তম উপাদেয় খাদ্যনির্যাস, তেমনি নিরাময়ের ব্যবস্থাপত্রও।
মধুর গুনাগুন সম্পর্কে নিচে তুলে ধরা হলো:
১. হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। রক্তনালি প্রসারণের মাধ্যমে রক্ত সঞ্চালনে সহায়তা করে এবং হৃদপেশির কার্যক্রম বৃদ্ধি করে;
২. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে;
৩. দাঁতকে পরিষ্কার ও শক্তিশালী করে;
৪. দৃষ্টিশক্তি ও স্মরণশক্তি বৃদ্ধি করে;
৫. মধুর রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্ষমতা, যা দেহকে নানা ঘাত-প্রতিঘাতের হাত থেকে রক্ষা করে;
৬. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যান্সার প্রতিরোধ করে ও কোষকে ফ্রি রেডিকেলের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে;
৭. বার্ধক্য অনেক দেরিতে আসে,যৌন দুর্বলতায় মধু অত্যন্ত সহায়ক।
৮. মধুর ক্যালরি রক্তের হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ বাড়ায়, ফলে রক্তবর্ধক হয়;
৯. যারা রক্ত স্বল্পতায় বেশি ভোগে বিশেষ করে মহিলারা, তাদের জন্য নিয়মিত মধু সেবন অত্যন্ত ফলদায়ক;
১০. গ্লাইকোজেনের লেভেল সুনিয়ন্ত্রিত করে;
১১. আন্ত্রিক রোগে উপকারী। মধুকে এককভাবে ব্যবহার করলে পাকস্থলীর বিভিন্ন রোগের উপকার পাওয়া যায়;
১২. আলচার ও গ্যাস্ট্রিক রোগের জন্য উপকারী;
১৩. দুর্বল শিশুদের মুখের ভেতর পচনশীল ঘায়ের জন্য খুবই উপকারী;
১৪. শরীরের বিভিন্ন ধরনের নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে এবং উষ্ণতা বৃদ্ধি করে;
১৫. ভিটামিন-বি কমপ্লেক্স এবং ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ মধু স্নায়ু এবং মস্তিষ্কের কলা সুদৃঢ় করে;
১৬. মধুতে স্টার্চ ডাইজেস্টি এনজাইমস এবং মিনারেলস থাকায় চুল ও ত্বক ঠিক রাখতে অনন্য ভূমিকা পালন করে;
১৭. মধু কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে;
১৮. ক্ষুধা, হজমশক্তি ও রুচি বৃদ্ধি করে; মধু পাকস্থলীর কাজকে জোরালো করে এবং হজমের গোলমাল দূর করে।
১৯. রক্ত পরিশোধন করে,মেয়েদের রূপচর্চার ক্ষেত্রে মাস্ক হিসেবে মধুর ব্যবহার বেশ জনপ্রিয়। মুখের ত্বকের মসৃণতা বৃদ্ধির জন্যও মধু ব্যবহৃত হয়।
মধুতে নেই কোনো চর্বি। মধু পেট পরিষ্কার করে, মধু ফ্যাট কমায়, ফলে ওজন কমে।
২০. শরীর ও ফুসফুসকে শক্তিশালী করে;
২১. জিহ্বার জড়তা দূর করে;
২২. মধু মুখের দুর্গন্ধ দূর করে;
২৩. বাতের ব্যথা উপশম করে;
২৪. মাথা ব্যথা দূর করে; মধু অনিদ্রার ভালো ওষুধ। রাতে শোয়ার আগে এক গ্লাস পানির সঙ্গে দুই চা চামচ মধু মিশিয়ে খেলে এটি গভীর ঘুমে কাজ করে।
২৫. শিশুদের দৈহিক গড়ন ও ওজন বৃদ্ধি করে;শিশুদের ছয় মাস বয়সের পর থেকে অল্প করে (তিন চার ফোঁটা) মধু নিয়মিত খাওয়ানো উচিত। এতে তাদের পুরো দেহের বৃদ্ধি, মানসিক বিকাশ ভালো হবে।
২৬. গলা ব্যথা, কাশি-হাঁপানি এবং ঠাণ্ডা জনিত রোগে বিশেষ উপকার করে;
২৭. শিশুদের প্রতিদিন অল্প পরিমাণ মধু খাওয়ার অভ্যাস করলে তার ঠাণ্ডা, সর্দি-কাশি, জ্বর ইত্যাদি সহজে হয় না;
২৮. শারীরিক দুর্বলতা দূর করে এবং শক্তি-সামর্থ্য দীর্ঘস্থায়ী করে;
২৯. ব্যায়ামকারীদের শক্তি বাড়ায়;
৩০. মধু খাওয়ার সাথে সাথে শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে, ফলে শরীর হয়ে উঠে সুস্থ, সতেজ এবং কর্মক্ষম। শীতের ঠাণ্ডায় এটি দেহকে গরম রাখে। এক অথবা দুই চা চামচ মধু এক কাপ ফুটানো পানির সঙ্গে খেলে শরীর ঝরঝরে ও তাজা থাকে।

Customer reviews
0
0 ratings
5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%
Reviews

There are no reviews yet.

Write a customer review

Be the first to review “সুন্দরবনের খলিসা ফুলের প্রাকৃতিক মধু”

0

TOP

X